শিক্ষার্থীদের ল্যাপটপ কিনার ঋণ পাওয়ার উপায়

শিক্ষার্থীদের ল্যাপটপ কিনার ঋণপাওয়ার মাধ্যম সম্পর্কে আজকে আমরা জানবো। বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ। তথ্য প্রযুক্তির ছোঁয়ায় আমরা অনেক আধুনিক হয়েছি। আমাদের সকলের হাতেই রয়েছে এখন স্মার্টফোন। স্মার্টফোনের পাশাপাশি আমরা অনেকেই ল্যাপটপ বা কম্পিউটার ব্যবহার করতে চাই। তবে শিক্ষার্থীদের  জন্য বর্তমানে ল্যাপটপ ক্রয় করার ঋণ পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। যদি আপনি একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে খুব সহজেই ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ল্যাপটপ ক্রয় করতে পারবেন। শিক্ষার্থী ছাড়াও অন্য যে কেউ মোবাইল, কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ইত্যাদি কিনার জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করতে পারবে।

শিক্ষার্থীদের জন্য ঋণ

বিভিন্ন কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ল্যাপটপ ক্রয় করার জন্য সহজ শর্তে ঋণের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। যদি আপনি একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে ব্যাংক থেকে মাত্র ৪% হারে সুদ দিয়ে এই ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন। বর্তমান সময়ে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিপুল পরিমাণে সাহায্য প্রদান করা হচ্ছে। দেশের তরুণ সমাজের বেকারত্ব দূর করার জন্য আইসিটি খাতে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বেশি।

তাই সবাইকে পড়াশোনার পাশাপাশি আইসিটিতে দক্ষ করে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে। বিভিন্ন স্থানে আউটসোর্সিংয়ের অনেক প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে সরকারিভাবে। এজন্যই শিক্ষার্থীদের জন্য মাত্র চার ৪% হার সুদে ঋণের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

অন্য সকলের জন্য ল্যাপটপ

শিক্ষার্থী ছাড়াও অন্য পেশার মানুষ ডিজিটাল পণ্য ক্রয় করার জন্য ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন। মোবাইল, কম্পিউটার, ল্যাপটপ ইত্যাদি ডিভাইস ক্রয় করার জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করার সুযোগ রয়েছে। বিভিন্ন ব্যাংক থেকে 70 শতাংশ পর্যন্ত ঋণ নেওয়া যাবে। যেমন আপনার কম্পিউটারের দাম এক লক্ষ টাকা হলে, সত্তর হাজার টাকা ঋণ নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বাকি ৩০ হাজার টাকা আপনাকে বহন করতে হবে। যে কোন পেশার গ্রাহক ভোক্তা ঋণের আওতায় এই ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন।

কেন শিক্ষার্থীদের ঋণ দেওয়া হবে

করোনা কালীন সময়ে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। এর জন্য অনেকেই ঘরে বসে অনলাইনে ক্লাস করেছেন। এছাড়াও বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির খাতে অনেক বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষা দক্ষ করে তোলা প্রয়োজন। এই জন্যই শিক্ষার্থীদের সহজে ল্যাপটপ ক্রয় করার জন্য ঋণ দেওয়া হচ্ছে। প্রথমদিকে মাত্র ৩০ শতাংশ ঋণ দেওয়ার সুযোগ ছিল ব্যাংকের। কিন্তু বর্তমানে ল্যাপটপ মোবাইল ক্রয় করার জন্য ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ দিতে পারবে ব্যাংক।

কিভাবে ঋণ পাবেন

ঋণ গ্রহণ করার জন্য প্রথমে আপনাকে নিকটস্থ ব্যাংকে যোগাযোগ করতে হবে। যদি আপনার নিকটস্থ ব্যাংকে ল্যাপটপে ঋণ প্রদান করা হয় তাহলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সাথে নিতে হবে। ব্যাংক একাউন্ট করার জন্য আপনার ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্যের প্রয়োজন হবে। এছাড়াও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর পরিচয় পত্র ব্যবহার করতে পারেন।

শেষ কথা

বন্ধুরা আজকের এই র্পবে ল্যাপটপ কিনার ঋণ সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন। যদি আপনি একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে ব্যাংক ঋণের মাধ্যমে ল্যাপটপ ক্রয় করতে পারেন। এই ঋণের ক্ষেত্রে আপনি ৭০% টাকা হাতে পেয়ে থাকবেন। বর্তমানে তাই আপনার যেকোন ডিজিটাল পণ্যের প্রয়োজন হলে ব্যাংকের ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন।

Leave a Comment